গর্ভাবস্থায় তলপেট ভারী লাগে কেন ও দূর করার উপায়

গর্ভাবস্থায় তলপেট ভারী লাগে কেন ও দূর করার উপায়

তলপেট ফোলার কারণ: গর্ভাবস্থায় শুরুতেই দেহের প্রজেস্টেরন হরমোনের ক্ষরণ বৃদ্ধি পায়। তার হাত ধরে পাকস্থলী থেকে খাবার নীচে নামার প্রক্রিয়া ধীর হয়ে যায়। এরফলে পেট একটু ভারী থাকে। ‘

এর সঙ্গে প্রথম ১২ সপ্তাহ অম্বল, গলাজ্বালা বাড়ে৷। কোষ্ঠকাঠিন্যও থাকে অনেকের৷ দু-একদিন পেট পরিষ্কার না হলে মেয়েদের পেট ফোলার সমস্যা বেড়ে যায়। এরপর যত সময় যায়, যত পেট বড় হতে থাকে, পাকস্থলীর উপর চাপ তত বেশি পড়ে, সমস্যা বাড়ে তত৷ বেশি খাওয়া ও শুয়ে-বসে থাকার যুগলবন্দীতে তা বাড়াবাড়ি রূপ নেয় কখনও।

READ ALSO

এসময় খাবারের পরিমাণ নয়, বাড়াতে হয় পুষ্টির মান৷ দিনের প্রতিটি খাবার পুষ্টিকর হলে কম খাবারেই ভাবী মা শিশুর স্বাস্থ্য ভালো থাকে। মাঝেমধ্যে এক-আধ চামচ ঘি বা মাখন খাওয়া যেতেই পারে৷ কিন্তু বেশি খেলে এক দিকে যেমন পেট ফাঁপা বাড়তে পারে, সূচনা হতে পারে ওজন বৃদ্ধির, যা থেকে ডায়াবেটিস ও আরও নানান জটিলতার আশঙ্কা বাড়ে৷ আর ব্যায়াম একেবারেই নিষিদ্ধ নয় এসময়। হালকা ফ্রি হ্যান্ড ও ঘরোয়া কাজকর্ম করলে গ্যাস, অম্বল, বদহজম, কোষ্ঠকাঠিন্য কম থাকে, ওজন বাড়তে পারে না, গর্ভাবস্থায় যা একান্ত প্রয়োজনীয়৷”

তলপেট ফোলার সমস্যার সমাধান:

  • সহজে হজম হয় এমন পুষ্টিকর খাবার খান, পেট একটু খালি রেখে৷ কারণ এসময় পাকস্থলীতে জায়গা কমে যায়৷ পেট বেশি ভরে খেলে আইঢাই করে৷ অম্বল, বদহজম বেশি হয়৷ বার বার খিদে পেলে বার বারই খাবেন, তবে অল্প করে৷

 

  • সবুজ শাক-সব্জি খান পর্যাপ্ত৷ সারা দিন মোটামুটি সচল থাকলে ও হালকা ব্যায়াম করলে গ্যাস হবে না কিন্তু পেট পরিষ্কার থাকবে৷ এই একই কারণে পানি সারাদিনে ৮-১০ গ্লাস খাবেন৷

 

  • কম মিষ্টি ফল খান মাপমতো৷ খুব বেশি ফল খেলে, বিশেষ করে মিষ্টি ফল, ওজন বেড়ে যেতে পারে, যা এ সময় কাম্য নয়৷
See also  কিডনির এনাটমী-Anatomy of Kidney

 

  • তেল-ঘি-মাখন যত কম তত ভালো৷ মশলাও বুঝেশুনে৷

 

  • ভাত-রুটি-পাস্তা-নুডুল মাপমতো, মাছ, চিকেন, ডিম, ডাল ও অন্যান্য প্রোটিন খান পর্যাপ্ত।

 

আরও পড়ুন:

Facebook
Twitter
LinkedIn

Related Posts

গর্ভাবস্থায়

গর্ভাবস্থায় মায়ের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। এরফলে গর্ভবর্তী নারীদের বিভিন্ন রোগ সৃষ্টি হয়। যেমন: সর্দি-কাশি, গ্যাস্ট্রিক, ঘুম কম, ব্যথা,...

Read more
গর্ভাবস্থায় কোন পাশে ঘুমাবেন ও বাচ্চা কোন পাশে থাকে-sleep-on-during-pregnancy

গর্ভাবস্থায় কোন পাশে ঘুমাবেন ডানে না বামে: প্রথম ত্রৈমাসিকের পরে গর্ভবতী নারীদের সাবধানে সঠিক ঘুমের অবস্থান নির্বাচন করা উচিৎ। গর্ভাবস্থায়...

Read more

Related Posts

Welcome Back!

Login to your account below

Create New Account!

Fill the forms bellow to register

Retrieve your password

Please enter your username or email address to reset your password.

x

Add New Playlist

Are you sure want to unlock this post?
Unlock left : 0
Are you sure want to cancel subscription?