The Unforgettable History-Hsc-English First Paper-unit-1-lesson-1

The Unforgettable History-Hsc

The Unforgettable History

Summary of the lesson-লেসনটির সারাংশ

This lesson is based on the historic speech of March 7, 1971 delivered by Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman. (এই লেসনটি ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণের ওপর। )

READ ALSO

This particular speech demonstrates the vulnerable situation of the people of the then East Pakistan and points out the directions of Liberation movement in brief. (এই ভাষণটিতে তৎকালীন পূর্ব এ লেসনটি ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর পাকিস্তানের মানুষের শোচনীয় অবস্থা এবং স্বাধীনতা সংগ্রামের দিক নির্দেশনা সংক্ষেপে বর্ণিত হয়েছে। )

This speech is a timeless charter of the independence of Bangladesh.(এই ভাষণ বাংলাদেশের স্বাধীনতার একটি কালোত্তীর্ণ দলিল।)

Throughout the world, this speech has been placed as an utterance of suppressed people. ( শোষিত মানুষের হাহাকারের কথা হিসেবে পৃথিবীজুড়ে এই ভাষণটি সমাদৃত। )

It is not a large address in size but, in content, bears the tragic agonies under the suppression of West Pakistan for 23 years, Bangabandhu made a clear focus on the independence of this land throughout his speech. ( ২৩ বছরের দুঃখ-দুর্দশার বর্ণনা বহন করে। বঙ্গবন্ধু তাঁর আকারে বড় না হলেও এটি পশ্চিম পাকিস্তানের অধীন শোষণের স্বর্ণালি ভাষণের মধ্য দিয়ে এই ভূখণ্ডের সামগ্রিক স্বাধীনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। )

The speech can be divided into two parts. The first part contains the description of the current situation and how the ruling class was creating tremendous disparity between West Pakistan and East Pakistan. The second part comes up with the direction and declaration of going against the oppressive rulers in every sphere which led to the independence gradually. (ভাষণটি ২ ভাগে ভাগ করা যায়, ১ম অংশে চলমান দুরবস্থা এবং কীভাবে শাসক গোষ্ঠী পূর্ব এবং পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যে ব্যাপক বৈষম্য সৃষ্টি করেছিল তা তুলে ধরা হয়েছে। ২য় অংশে প্রতিক্ষেত্রে শাসকদের বিরোধিতা করার যে নির্দেশনা এবং ঘোষণা এসেছে তা পর্যায়ক্রমে স্বাধীনতার দিকে ধাবিত করেছে।)

The Pakistani ruling machine converted this land into a crimson shade of blood for 23 years. (পাকিস্তানি শাসন যন্ত্র ২৩ বছর ধরে এই ভূখণ্ডকে রক্তে রঞ্জিত করে ফেলেছিল।)

They deprived the people of the then East Pakistan politically, economically, culturally and in every aspect of national and international perspectives. (তারা আমাদেরকে রাজনৈতিকভাবে, অর্থনৈতিকভাবে, সাংস্কৃতিকভাবে এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সব প্রেক্ষাপট থেকে বঞ্চিত করে রেখেছিল।)

Under these circumstances, the legendary leader of Bangladesh, Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman declared continuous strike indefinitely. ( এমতাবস্থায় বাংলাদেশের অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট ঘোষণা করলেন। )

This was only an alternative to attain the lost rights of the people of East Pakistan. (পূর্ব পাকিস্তানের মানুষের জন্য তাদের হারানো অধিকার আদায়ের এটাই একমাত্র পন্থা ছিল।)

His intention was not to be the Prime Minister only wanted the legal rights of his people. ( প্রধানমন্ত্রী হওয়ার তার বাসনা ছিল না, তিনি শুধু মানুষের অধিকার চেয়েছিলেন। )

Regarding this, he called up the people to protest in every possible way from their respective place. (এটা বিবেচনা করে তিনি মানুষকে তাদের নিজ নিজ জায়গা থেকে সবরকমভাবে প্রতিবাদ করার আহ্বান জানান। )

The government employees, the bankers and the businessmen were told not to cooperate with the West Pakistan government. (সরকারি কর্মকর্তা- কর্মচারী, ব্যাংকার এবং ব্যবসায়ীদেরকে নির্দেশ দিলেন পশ্চিম পাকিস্তান সরকারকে কোনোভাবেই সহযোগিতা না করতে। )

It was stated that under the leadership of the Awami League, the revolutionary committees will be reformed. Bangabandhu incisively proclaimed the movement as the movement of liberation at the end. (বলা হয়েছিল যে, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে সংগ্রাম কমিটিগুলো গঠন করা হবে। সবশেষে, বঙ্গবন্ধু এই সংগ্রামকে স্বাধীনতা। সংগ্রাম বলে ঘোষণা করলেন।)

  • Word & meaning:

Grief (noun)-বিষাদ, ক্ষোভ Yet (adverb)- তবুও, তথাপি, এখনো Fortunate (adjective)- সৌভাগ্যবান, ঋদ্ধ Significant (adjective)-তাৎপর্যপূর্ণ, গুরত্বপূর্ণ Awash (adjective)-প্লাবিত,তরঙ্গবিধৌত, ভাসমান Overflowing (adjective, verb)-উপচে পড়া Constitution (noun)- সংবিধান, শাসনতন্ত্র Import ( noun )- প্রভাব, গুরুত্ব Cope (verb, noun )-সামলানো , মস্তকাবরণ Draft (noun)-খসড়া, নকশা Regret( noun, verb )-অনুশোচনা করা, দুঃখ প্রকাশ Tragic( adjective)-দুঃখ জনক, বিয়োগান্তক Inflict ( verb )- আরোপ করা, শাস্তি দেয়া Torture(verb, noun )- নিপীড়ন, অত্যাচার, Victor (noun )- বিজয়ী Assume (verb )- ধারণা করা, দায়িত্ব গ্রহণ করা Bloodshed (verb )- রক্তপাত Agony ( noun)-মহাবেদনা, উৎকণ্ঠা Crimson (adjective)-টকটকে লাল, রক্তিম বর্ণ Enslave (verb)- দাস বানিয়ে রাখা, ক্রীতদাস করা Reins(noun )- লাগাম Assembly( noun )- সমাবেশ, বৈঠক, সংসদ So far (adverbial )- এতদূর Observe ( verb)-পালন করা, পর্যবেক্ষণ করা Session( noun )-অধিবেশন Negotiation ( noun )- আলাপ আলোচনা, সমঝোতা, চুক্তি Slaughter (verb, noun )- জবাই করা, বধ করা Reign( noun, verb )-ক্ষমতা, রাজত্ব Democracy (noun )- গণতন্ত্র, Majority (noun)- সংখ্যাগরিষ্ঠতা Hold( verb )-অনুষ্ঠিত করা, রাখা Instead ( adverb)- পরিবর্তে Prorogue( verb )-স্থগিত রাখা Protest (verb, noun )-প্রতিবাদ করা Spontaneously( adverb )-স্বতঃস্ফূর্তভাবে Firm (adjective)-অটল ,মজবুত ,অবিচল Determination ( noun )-সংকল্প Constitute ( verb )-গঠন করা External ( adjective )-বাহিরের, বহিরাগত Apparent (adjective )-প্রত্যক্ষ, দৃষ্টিমান, প্রতীয়মান Wretched ( adjective )-দূর্দশাগ্রস্ত Downtrodden (adjective ) -অধিকার বঞ্চিত, নিপীড়িত Deprived (adjective)- বঞ্চিত করা Massacre (noun )-গণহত্যা Wade ( verb )-পা দিয়ে মাড়া দেয়া Spill(verb )-ঝরা, পতন Although (conjunction )-যদিও Withdraw (verb )- প্রত্যাহার,ফিরিয়ে নেয়া, Barracks (noun)- ছাউনী, ঘর Representative (noun, adjective)-প্রতিনিধি Secretariat (noun)- দপ্তর,সচিবালয়,ভবন Convent (noun )- মঠ,বিহার Fort ( noun)-দূর্গ Confront ( verb )- মোকাবিলা করা Indefinitely( adverb )-অনিদিষ্ট ভাবে, অনিশ্চিতভাবে Magistracy (noun )-বিচারালয়, প্রমাণিক Revolt (verb, noun )- বিদ্রোহ করা Hardship (noun )-দুর্দশা, Direct (verb, adjective)-সরাসির, নির্দেশনা দেয়া Standstill (noun )-অচলাবস্থা Starve (verb )-ক্ষুধায় কাতরানো, Bother (verb )-মাথা ঘামানো, ঝামেলা করা Anarchy (noun )- নৈরাজ্য Taint (noun, verb )-দাগ,কলঙ্কিত Transmit (verb )-প্রেরণ করা, পাঠানো, Suppress ( verb )-দমন করা, গোপন করা Martyr (verb, noun )-শহীদ, শহীদ করাWage (noun )- মজুরি Chaos (noun)- বিশৃঙ্খলা Abroad (adverb )- বিদেশ Attempt(verb, noun )-চেষ্টা, পদক্ষেপ Wound (noun, verb )-ক্ষত Assist (verb )-সহেযোগিতা করা Mean ( noun)-উপায়, অর্থ প্রকাশ করা, মানে বোঝানো Relief(noun)-মুক্তি, ত্রাণ Exterminate (verb )-দমন করা, বিনাশ করা Appropriate (adjective)-উপযুক্ত Revolution ( noun )-বিপ্লব, আন্দোলন Liberate (verb )-স্বাধীন করা, মুক্ত করা Emancipation(noun )-স্বাধীনতা, মুক্তি Community (noun )-সম্প্রদায়, সমাজ Possession (noun )-মালিকানা.

  • Read the speech

My brothers, (ভায়েরা আমার,)

I stand before you today with a heart overflowing with grief. (আজ দু:খ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি।) You are fully aware of the events that are going on and understand their import. ( যে ঘটনাগুলো ঘটছে আপনারা সবই জানেন এবং বোঝেন।) We have been trying to do our best to cope with the situation.(পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছি।।)

And yet, unfortunately, the streets of Dhaka, Chittagong, Khulna, Rajshahi and Rangpur are awash with the blood of our brothers. (কিন্তু দু:খের বিষয়, আজ ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, রংপুরে আমার ভাইয়ের রক্তে রাজপথ রঞ্জিত হয়েছে।)

The people of Bengal now want to be free, the people of Bengal now want to live, and the people of Bengal now want their rights. (আজ বাংলার মানুষ মুক্তি চায়, বাংলার মানুষ বাঁচতে চায়, বাংলার মানুষ তার অধিকার চায়।)

What have we done that was wrong? (কী অন্যায় করেছিলাম? )

After the elections, the people of Bangladesh voted as one for me, for the Awami League. (নির্বাচনের পরে, বাংলাদেশের মানুষ সম্পূর্ণভাবে আমাকে, আওয়ামীলীগকে ভোট দেন।)

We were to sit in the National Assembly, draft a constitution for ourselves there, and build our country; the people of this land would thereby get economic, political, and cultural freedom. (আমাদের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি বসবে, আমরা সেখানে শাসনতন্ত্র তৈরি করব এবং এদেশকে আমরা গড়ে তুলব; এদেশের মানুষ অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক মুক্তি পাবে।)

See also  একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি-প্রথম অধ্যায়

But it is with regret that I have to report to you today that we have passed through twenty-three tragic years; Bengal’s history of those years is full of stories of torture inflicted on our people, of bloodshed by them repeatedly. (কিন্তু আজ দু:খের সঙ্গে বলতে হয় ২৩ বৎসরের করুণ ইতিহাস; বাংলার অত্যাচারের, বাংলার মানুষের রক্তের ইতিহাস।) Twenty Three years of a history of men and women in agony! (২৩ বৎসরের ইতিহাস মুমূর্ষ নর-নারীর আর্তনাদের ইতিহাস।)

The history of Bengal is the history of people who have repeatedly made their highways crimson with their blood. (বাংলার ইতিহাস এদেশের মানুষের রক্ত দিয়ে রাজপথ রঞ্জিত করার ইতিহাস। )

We shed blood in 1952; even though we were the victors in the elections of 1954 we could not form government in the elections of 1958 Ayub Khan declared Martial Law to enslave us for the next ten years. (১৯৫২ সালে রক্ত দিয়েছি। ১৯৫৪ সালে নির্বাচনে জয়লাভ করেও আমরা গদিতে বসতে পারি নাই। ১৯৫৮ সালে আয়ুব খান মার্শাল ল’ জারি করে ১০ বছর পর্যন্ত আমাদের গোলাম করে রেখেছে।)

In 1966 when we launched the six-point movement our boys were shot dead on 7 June. (১৯৬৬ সালে ৬ দফা আন্দোলনে ৭ই জুনে আমার ছেলেদের গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।)

When after the movement of 1969 Ayub Khan fell from power and Yahya Khan assumed the reins of the government he declared that he would give us a constitution and restore democracy; we listened to him then. A lot has happened since and elections have taken place. (১৯৬৯ এর আন্দোলনে আয়ুব খানের পতন হওয়ার পরে যখন ইয়াহিয়া খান সাহেব সরকার নিলেন, তিনি বললেন, দেশে শাসনতন্ত্র দেবেন, গণতন্ত্র দেবেন; আমরা মেনে নিলাম। তারপরে অনেক ইতিহাস হয়ে গেলো, নির্বাচন হলো।)

I’ve met president Yahya Khan, I’ve made a request to him not only on behalf of Bengal but also as the leader of the party which has the majority in Pakistan; I said to him: “You must hold the session of the National Assembly on 15 January”. (আমি প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান সাহেবের সঙ্গে দেখা করেছি। আমি, শুধু বাংলা নয়, পাকিস্তানের মেজরিটি পার্টির নেতা হিসাবে তাকে অনুরোধ করলাম, “১৫ই জানুয়ারী তারিখে আপনি জাতীয় পরিষদের অধিবেশন দেন।”)

But he did not listen to me. (তিনি আমার কথা রাখলেন না।) He listened to Mr. Bhutto instead. ( তিনি রাখলেন ভুট্টো সাহেবের কথা।) At taking place in the first week of March. (তিনি বললেন, মিটিং প্রথম সপ্তাহে মার্চ মাসে হবে।)

We said, “Fine, we will be taking our seats in the Assembly then”. ( আমরা বললাম, “ঠিক আছে, আমরা অ্যাসেম্বলিতে বসবো।”

I said we will carry out our discussions in the Assembly. I went so far as to say that if anyone came up with an offer that was just, even though we were in the majority we would agree to that offer. ) আমি বললাম, “অ্যাসেম্বলির মধ্যে আলোচনা করবো এমনকি যদি কেউ ন্যায্য কথা বলে, আমরা সংখ্যায় বেশি হলেও একজন যদিও সে হয় তাঁর ন্যায্য কথা আমরা মেনে নেব।)

Mr. Bhutto came here; he carried out discussions with us; he had said that the doors of negotiations had not been shut and that there would be further negotiations. (ভুট্টো সাহেব এখানে এসেছিলেন আলোচনা করলেন; বলে গেলেন যে, আলোচনার দরজা বন্ধ না, আরো আলোচনা হবে।)

I then had talks with other leaders; I said to them, “Come and sit down with us; let’s create a constitution for ourselves through discussions”. (তারপরে অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, তাদের সঙ্গে আলাপ করলাম, “আপনারা আসুন, বসি; আমরা আলাপ করে শাসনতন্ত্র তৈরি করবো।”)

But Mr. Bhutto declared that if west Pakistani members came here the assembly would end up as a slaughterhouse. (তিনি বললেন, “পশ্চিম পাকিস্তানের মেম্বাররা যদি এখানে আসেন তাহলে অ্যাসেম্বলি কসাইখানা হবে।” )

He claimed that whoever came here would be slaughtered. He said that if anyone showed up here all the shops from Peshawar to Karachi would be shut down. (তিনি বললেন, “যে যাবে তাকে মেরে ফেলে দেয়া হবে। যদি কেউ অ্যাসেম্বলিতে আসে তাহলে পেশোয়ার থেকে করাচি পর্যন্ত দোকান জোর করে বন্ধ করা হবে।”)

I declared that the Assembly would continue to meet. But suddenly on the 1st of March, the Assembly was shut down. Mr. Yahya Khan called the session of the Assembly in his capacity as the president and I declared I would be attending it. Mr. Bhutto said he wouldn’t be part of it. Thirty-five members of the Assembly came from West Pakistan to take part in its proceedings. But it was dissolved all of a sudden. The blame was put on the people of Bengal. The finger was pointed at me!

আমি বললাম, “অ্যাসেম্বলি চলবে। তারপরে হঠাৎ ১ তারিখে অ্যাসেম্বলি বন্ধ করে দেওয়া হলো। ইয়াহিয়া খান সাহেব প্রেসিডেন্ট হিসেবে অ্যাসেম্বলি ডেকেছিলেন; আমি বললাম যে, আমি যাবো। ভুট্টো সাহেব বললেন, তিনি যাবেন না। ৩৫ জন সদস্য পশ্চিম পাকিস্তান থেকে এখানে আসলেন। তারপর হঠাৎ বন্ধ করে দেওয়া হলো, দোষ দেওয়া হলো বাংলার মানুষকে, দোষ দেওয়া হলো আমাকে!

After the assembly’s session was prorogued, the people of this country protested. I told them, “Observe the General Strike we have called peacefully.” (অ্যাসেম্বলির অধিবেশন বন্ধ করে দেওয়ার পরে এদেশের মানুষ প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠল। আমি বললাম, “শান্তিপূর্ণভাবে আপনারা হরতাল পালন করেন।”)

I told them, “Shut down all mills and factories.” Our people responded to my call. They came to the streets spontaneously. They expressed their firm determination to carry out the struggle peacefully. ( আমি বললাম, “আপনারা কলকারখানা সব কিছু বন্ধ করে দেন।” জনগণ সাড়া দিলো। জনগণ স্বেচ্ছায় রাস্তায় বেরিয়ে পড়লো। তারা শান্তিপূর্ণভাবে সংগ্রাম চালিয়ে যাবার জন্য দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হলো।)

What have we got in return? (কী পেলাম আমরা?)

Those who brought arms with our money to defend us from external enemies are now using those arms on the poor, the wretched, the downtrodden people of the land. (আমাদের পয়সা দিয়ে অস্ত্র কিনেছি বহি:শত্রুর আক্রমণ থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্য, আজ সেই অস্ত্র ব্যবহার হচ্ছে আমার দেশের গরিব দু:খী নিরস্ত্র মানুষের বিরুদ্ধে। )

Bullets are being aimed at their hearts. We constitute the majority in Pakistan; but wherever we Bangalis have tried to assume power they have used force on us. (তার বুকের উপরে হচ্ছে গুলি। আমরা পাকিস্তানের সংখ্যাগুরু আমরা বাঙালিরা যখনই ক্ষমতায় যাবার চেষ্টা করেছি, তখনই তারা আমাদের ঝাঁপিয়ে পড়েছে।)

I have had a talk with Mr. Yahya Khan, I told him, “Mr. Yahya, you are the President of Pakistan; come and observe how the poor people of my country are being moved down with bullets; come and see how our mothers are being deprived of their children; how my people are being massacred. (টেলিফোনে আমার সঙ্গে তার কথা হয়। তাঁকে আমি বলেছিলাম “জনাব ইয়াহিয়া খান সাহেব, আপনি পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট দেখে যান কীভাবে গরিবের ওপরে, আমার বাংলার মানুষের বুকের ওপর গুলি করা হয়েছে; কী করে আমার মায়ের কোল খালি করা হয়েছে, কী করে মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। )

Come, observe, and only then pass judgment on what is going on.” (আপনি আসুন, দেখুন, বিচার করুন।” )

He has apparently said that I had agreed to attend a round table conference on the 10th of March. (তিনি বললেন, আমি নাকি স্বীকার করেছি যে, ১০ তারিখে গোল টেবিল বৈঠক হবে। )

See also  সূরা ফীল এর বাংলা উচ্চারণ-অর্থ-Surah Al-Fil

Didn’t I say long time back: what is the point of another Round Table Conference? (আমি তো অনেক আগেই বলে দিয়েছি, কিসের গোল টেবিল?)

Who will I sit with? Should I sit with those who have shed the blood of my people? He has without carrying out any discussions with me; after sitting in a secret meeting for five hours he gave a speech where he has at all the blame on me. He has even blamed the Bengali people! ( মানুষের বুকের রক্ত নিয়েছে, তাদের সঙ্গে বসবো? হঠাৎ আমার সঙ্গে পরামর্শ না করে পাঁচ ঘন্টা গোপনে বৈঠক করে যে বক্তৃতা তিনি দিয়েছেন, সমস্ত দোষ তিনি আমার ওপরে চাপিয়েছেন, বাংলার মানুষের ওপরে দিয়েছেন।)

The Assembly has been called into session on the 25th of March, But the blood spilled on our streets has not yet dried. About the 10th of this month, I have told them: Mujibur Rahman won’t join the Round Table Conference because that would mean wading over the blood that has been shed. (২৫ তারিখে অ্যাসেম্বলি কল করেছে। রক্তের দাগ শুকায় নাই। আমি ১০ তারিখে বলে দিয়েছি: ওই শহীদের রক্তের ওপর দিয়ে গোল টেবিল বৈঠকে মুজিবুর রহমান যোগদান করতে পারে না।)

Although you have called the Assembly into the session, you’ll have to withdraw Marital Law. (অ্যাসেম্বলি কল করেছেন, আমার দাবি মানতে হবে। প্রথম সামরিক আইন-মার্শাল ল ডইথড্র করতে হবে। )

You’ll have to return all army personnel to their barracks. (সমস্ত সামরিক বাহিনীর লোকদের ব্যারাকে ফেরত নিতে হবে।)

You’ll have to investigate the way our people have been murdered. (যেভাবে হত্যা করা হয়েছে তার তদন্ত করতে হবে।)

And you’ll have to transfer power to the representatives of the people. (আর জনগণের প্রতিনিধির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে।)

It is only then that I’ll decide whether we will take our seats in the Assembly or not.( তারপর বিবেচনা করে দেখবো, আমরা অ্যাসেম্বলিতে বসতে পারবো কী পারবো না। এর পূর্বে অ্যাসেম্বলিতে বসতে আমরা পারি না।)

I don’t want the Prime Minister’s office. (আমি প্রধানমন্ত্রিত্ব চাই না। )

We want the people of this country to have their rights. (আমরা এদেশের মানুষের অধিকার চাই।)

I want to state clearly that from this day Bangladesh’s courts, magistrates, government offices and educational, institutions will be shut down indefinitely. (আমি স্পষ্ট ভাষায় বলে দিতে চাই, আজ থেকে বাংলাদেশে কোর্ট-কাছারি, আদালত-ফৌজদারি, সরকারী অফিস ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে।)

So that the poor don’t have to suffer, so that my people don’t have to go through hardships, all other things will be exempted from the General strike from tomorrow. (গরিবের যাতে কষ্ট না হয়, যাতে আমার মানুষ কষ্ট না করে সেইজন্য যে সমস্ত অন্যান্য জিনিসগুলো আছে সেগুলোর হরতাল কাল থেকে চলবে না।)

Rickshaws, horse carriages, trains, and launches will be allowed to move. Only the Secretariat, the Supreme Court, the High Court, Judges’ Court, and semi-government organizations such as WAPDA will not be allowed to work. ( রিকশা, ঘোড়ারগাড়ি, রেল চলবে, লঞ্চ চলবে- শুধু… সেক্রেটারিয়েট, সুপ্রিম কোর্ট, হাইকোর্ট, জজকোর্ট, সেমি গর্ভনমেন্ট দপ্তরগুলো ওয়াপদা কোন কিছু চলবে না।)

On the 28th employees will go and collect their salaries, If their salaries are not paid, if another bullet is fired, if my people are shot dead again, I request all of you, convert every house into a fort; confront the enemy with whatever you have, And even at the risk of your life, and even if I am not around to direct you, shut down all shops and make sure that traffic on all roads and ports are brought to a standstill. If need be, we will starve to death but we’ll go down striving for our rights. (২৮ তারিখে কর্মচারীরা গিয়ে বেতন নিয়ে আসবেন। এরপরে যদি বেতন দেওয়া না হয়, আর যদি একটা গুলি চলে, আর যদি আমার লোককে হত্যা করা হয়- তোমাদের কাছে আমার অনুরোধ রইলো, প্রত্যেক ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোল তোমাদের যা কিছু আছে তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবেলা করতে হবে। এবং জীবনের তরে, রাস্তাঘাট যা যা আছে সবকিছু- আমি যদি হুকুম দেবার নাও পারি, তোমরা বন্ধ করে দেবে। আমরা ভাতে মরবো, আমরা পানিতে মরবো। তবুও আমরা আমাদের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলন চালিয়ে যাব।)

To those in the armed forces, I have this to say: you are my brothers, stay in your barracks and no one will bother you. But don’t try again to aim your bullets at our chests. You can’t suppress seventy million people forever. Since we have learned to sacrifice ourselves no one can suppress us anymore. ( সশস্ত্র বাহিনীর ভাইদেরকে বলছি: তোমরা আমার ভাই, তোমরা ব্যারাকে থাকো, কেউ তোমাদের কিছু বলবে না। কিন্তু আর আমাদের বুকের ওপর গুলি চালাবার চেষ্টা করো না। সাত কোটি মানুষকে দাবায়ে রাখতে পারবা না। আমরা যখন মরতে শিখেছি তখন কেউ আমাদের দাবাতে পারবে না।)

And as for our martyrs and those who have been wounded, we in the Awami League will do everything we can to assist them and their loved ones. If you have the means, please give what little you can to our Relief Committee. To owners of factories whose workers had participated in the General Strike the last seven days, I have this to say: make sure that they are paid wages for those days. To government employees, I have this to tell: you’ll have to listen to my directives. Till our country is liberated, taxes and customs duties won’t be collected. No one will pay them either. (আর যে সমস্ত লোক শহীদ হয়েছে, আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে, আমরা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে যদ্দুর পারি তাদের সাহায্য করতে চেষ্টা করবো। যারা পারেন আমাদের রিলিফ কমিটিতে সামান্য টাকা পয়সা পৌঁছে দেবেন। আর এই সাত দিন হরতালে যে সমস্ত শ্রমিক ভাইয়েরা যোগদান করেছেন, প্রত্যেকটা শিল্পের মালিক তাদের বেতন পৌঁছে দেবেন। সরকারি কর্মচারীদের বলি, আমি যা বলি তা মানতে হবে। যে পর্যন্ত আমার এই দেশের মুক্তি না হবে, খাজনা ট্যাক্স বন্ধ করে দেওয়া হলো কেউ দেবে না।)

Remember: the enemy is amidst us to create chaos and confusion, to create anarchy and to loot, in our Bengal Hindus and Muslims, Bengalis and non- Bengalis are all brothers, We are responsible for their safety; let us not taint ourselves in any way. (মনে রাখবেন, শত্রুবাহিনী ঢুকেছে, নিজেদের মধ্যে আত্মকলহ সৃষ্টি করবে, লুটতরাজ করবে। এই বাংলায় হিন্দু-মুসলমান, বাঙালি- অবাঙালি যারা আছে তারা আমাদের ভাই। তাদের রক্ষার দায়িত্ব আমাদের ওপর, আমাদের যেন বদনাম না হয়।)

Remember those of you who work for radio and television; If the people running the radio station aren’t ready to listen to us, no Bengali will report for work their salaries. But we won’t allow even a single poisha to be transferred from East Bengal to West Pakistan. Telephones and telegram services will continue as before in our news Aboard you will see to that. But if any attempt is made to exterminate our people all Bengalis must take appropriate action. (মনে রাখবেন, রেডিও টেলিভিশনের কর্মচারীরা, যদি রেডিওতে আমাদের কথা না শোনে তাহলে কোনো বাঙালি রেডিও স্টেশনে যাবেন না। যদি টেলিভিশন আমাদের নিউজ না দেয়, কোনো বাঙালি টেলিভিশনে যাবেন না। ২ ঘন্টা ব্যাংক খোলা থাকবে, যাতে মানুষ তাদের মায়না পত্র নিতে পারে। পূর্ব বাংলা থেকে পশ্চিম বাংলা পাকিস্তানে এক পয়সাও টেলিগ্রাম আমাদের এই পূর্ব বাংলায় চলবে এবং বিদেশের সঙ্গে নিউজ পাঠাতে হলে আপনারা চালাবেন। কিন্তু যদি এ দেশের মানুষকে খতম করার চেষ্টা করা হয়, বাঙ্গালি বুঝেশুনে কাজ করবেন।)

See also  বিদেশে ১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুবর্ণ সুযোগ

Form Revolutionary Committees under the leadership of the Awami League in every village, every community. Be prepared to act with what you have in your possession. (প্রত্যেক গ্রামে, প্রত্যেক মহল্লায় আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে সংগ্রাম পরিষদ গড়ে তোলো। এবং তোমাদের যা কিছু আছে, তাই নিয়ে প্রস্তুত থাকো।)

Remember: since we have already had to shed blood, we’ll have to shed a lot more of it; by the Grace of God, however, we’ll be able to liberate the people of this land. (মনে রাখবে, রক্ত যখন দিয়েছি, রক্ত আরো দেব। এদেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়বো ইনশাল্লাহ।)

The struggle this time is a struggle for freedom- the struggle this time is a struggle for emancipation. (এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।)

Long Live Bengal! (জয় বাংলা!)

  • Answer the following questions:

a. What features of the speech do you appreciate most? Why? (ভাষণটির কোন দিকগুলো তুমি সবচেয়ে বেশি মূল্যায়ন করো? কেন?)

Ans: The feature of the speech that I appreciate most is that it was delivered to uphold the rights of the people of East Pakistan. It categorises the sufferings of the people of East Pakistan inflicted by the West Pakistani rulers and also provides a direction for the emancipation of the people from the shackles of Pakistani rulers. Another feature that particularly attracts me is the democratic attitude of Bangabandhu. He was ready to compromise for the sake of peace. He said that he would accept logical proposals from the West Pakistani parliament members although they were minority in the house. Another feature that I like is that Bangabandhu called for strike, but rickshaws, horse driven carriages, trains, and launches were not included in it. I like this feature as this strike was a protest against the brutality and injustice of the autocratic rulers of West Pakistan, but this strike was not so harmful for the poor and the downtrodden people of East Pakistan. (ভাষণটির যে দিকটি আমি বেশি মূল্যায়ন করি, সেটা হলো এটা তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের জনগণের অধিকারকে উত্থাপন করেছিল । এটা তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানি শাসক কর্তৃক পূর্ব পাকিস্তানের জনগণের ওপর অত্যাচারের বিবরণ তথা পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকদের শোষণের কবল থেকে পূর্ব পাকিস্তানের জনগণের উদ্ধার পাওয়ার নির্দেশনা প্রদান করেছে। অন্য যে বৈশিষ্ট্যটি আমাকে বিশেষভাবে আকর্ষণ করেছে সেটা হলো বঙ্গবন্ধুর গণতান্ত্রিক দৃষ্টিভঙ্গি। তিনি শান্তি রক্ষার জন্য সমঝোতা করতে প্রস্তুত ছিলেন। যদিও সংসদে পশ্চিম পাকিস্তানি সংসদ সদস্যদের অবস্থান সংখ্যালঘু ছিল তা সত্ত্বেও তিনি তাদের যুক্তিযুক্ত শর্তাবলি মেনে নিতে রাজি ছিলেন। আরেকটি বিষয় যেটা আমার খুব ভালো লেগেছে, তা হলো বঙ্গবন্ধু ধর্মঘট ডেকেছিলেন কিন্তু তাতে রিক্সা, ঘোড়াটানা গাড়ি, রেলগাড়ি এবং লঞ্চ কোনোটাই অন্তর্ভুক্ত ছিল না। ধর্মঘটের এই ধারণাটি আমার ভালো লেগেছে এই কারণে যে, এটি ছিল পশ্চিম-পাকিস্তানি স্বৈরাচারী শাসকদের বর্বরতা এবং শোষণের বিরুদ্ধে কিন্তু সে ধর্মঘট পূর্ব পাকিস্তানের হতদরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষদের জন্য কিঞ্চিৎ পরিমাণেও অহিতকর ছিল না।

b. What are the two main parts of the speech ? (ভাষণটির প্রধান দুটি অংশ কী কী?)

Ans: The two main parts of the speech are the description of the oppression and injustice of the West Pakistani rulers, and the way of the emancipation of the people of the then East Pakistan. (ভাষণটির দুটি প্রধান অংশ হচ্ছে পশ্চিম পাকিস্তানি শোষকদের অন্যায়-অবিচার এবং তার বিরুদ্ধে পূর্ব পাকিস্তানি জনগণের স্বাধীনতা আন্দোলনের ওপর বিশদ আলোচনা।)

c. Why does Bangabandhu say that “the 23 years of our history with Pakistan is a history of repression and bloodshed”? (বঙ্গবন্ধু কেন বলেছেন যে “পাকিস্তানের সাথে আমাদের ২৩ বছরের ইতিহাস হলো দমন ও রক্তপাতের ইতিহাস?”)

Ans: From 1947 to 1970, innumerable Bengalis were killed and mercilessly tortured by the Pakistani autocratic rulers, We, the Bengalis, shed blood in 1952 at the time of the Language Movement. In 1954, we won the election, but we could not form a government; rather we were enslaved by Ayub Khan for 10 years. In 1966, when the Six Point Demand was launched, our people were shot dead on June 7. Again, a lot of killing happened after the election in 1970. For all these reasons, Bangabandhu says that the 23 years of our history with Pakistan is a history of repression and bloodshed. (১৯৪৭ থেকে ১৯৭০ পর্যন্ত অগণিত বাঙালি পাকিস্তানি স্বৈরাচারী শাসকদের হাতে নির্দয়ভাবে নির্যাতিত ও নিহত হয়েছিল । আমরা বাঙালিরা ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের সময় রক্ত দিয়েছি। ১৯৫৪ সালের নির্বাচনে জয়লাভ করা সত্ত্বেও আমরা আমাদের সরকার গঠন করতে পারিনি, পক্ষান্তরে আরও দশটি বছর আইয়ূব খান আমাদেরকে গোলাম করে রেখেছেন। ১৯৬৬ সালে যখন ছয় দফা দাবি উত্থাপিত হয় তখন ৭ জুন আমাদের । করে মেরে ফেলা হয় । পুনরায় ১৯৭০ সালের নির্বাচনের পরও বহুসংখ্যক মানুষ নিহত হয়। এ সব কারণে বঙ্গবন্ধু বলেছেন যে পাকিস্তানের সাথে আমাদের ২৩ বছরের ইতিহাস হলো দমন ও রক্তপাতের ইতিহাস।)

d. How do you differentiate between the ‘struggle for freedom’ and the ‘struggle for emancipation? (তুমি কীভাবে ‘স্বাধীনতার সংগ্রাম’ ও ‘মুক্তির সংগ্রাম’-এর মধ্যে পার্থক্য করবে?)

Ans: Struggle for freedom refers to the struggle to get free from foreign rule or domination. On the other hand, struggle for emancipation means a struggle for getting rid of injustice, oppression, domination and deprivation. (স্বাধীনতা সংগ্রাম হলো বৈদেশিক শাসন ও নিপীড়নের হাত থেকে উদ্ধার পাওয়ার সংগ্রাম । অন্যদিকে, মুক্তির সংগ্রাম হলো, অবিচার, শোষণ, নীপিড়ন ও বঞ্চনা থেকে মুক্তির সংগ্রাম।)

e. How can you compare this speech with other famous speeches in history that you know about? (তোমার জানা মতে কীভাবে তুমি এই ভাষণটিকে ইতিহাসের অন্যান্য বিখ্যাত ভাষণের সাথে তুলনা করতে পার?)

Ans: Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman’s speech on March 7 in 1971 can be compared with the speech of the American civil rights activist Dr. Martin Luther King Jr. Martin Luther King Jr. delivered his speech to over 250,000 civil rights supporters from the steps of the Lincoln Memorial on 28th August, 1963. In his speech, Martin Luther King Jr. called for an end to racism in the United States. This speech was a defining moment of the American Civil Rights Movement. Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman’s March 7 speech is also a speech delivered to thousands of people at Race Course Maidan in Dhaka. In his speech, he called for the emancipation of Bengalis from the oppression of West Pakistani rulers. (১৯৭১ সালের ৭ই মার্চে দেওয়া বঙ্গবন্ধুর ভাষণটির সাথে, আমেরিকার স্বাধীনতাকামী কর্মী মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র-এর ভাষণের সাথে তুলনা করা যায়। ১৯৬৩ সালের ২৮ আগস্ট মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র, লিংকন মেমোরিয়াল থেকে দেশের দুই কোটি পঞ্চাশ লক্ষ মুক্তিকামী মানুষের উদ্দেশ্যে ভাষণটি দিয়েছিলেন। আলোচ্য ভাষণে মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র যুক্তরাষ্ট্রের বর্ণপ্রথা বিলুপ্তকরণের আহ্বান জানিয়েছিলেন। বক্তৃতাটি ছিল মূলত আমেরিকার নাগরিক ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় অহিংস আন্দোলনের নির্দেশনামূলক। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণটিও ছিল ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে হাজার হাজার মানুষের উদ্দেশ্যে। তাঁর ভাষণে তিনি পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকদের অত্যাচার থেকে বাঙালির মুক্তির আন্দোলনের আহ্বান জানিয়েছিলেন।)

Facebook
Twitter
LinkedIn

Related Posts

যুক্তরাষ্ট্রের স্টুডেন্ট ভিসা

পড়াশোনার মান ভালো বলে বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যান। ওই দেশে যাওয়ার প্রবণতা শিক্ষার্থীদের মধ্যে সবচেয়ে...

Read more
ভর্তি পরীক্ষার যোগ্যতা ও মানবন্টন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার যোগ্যতা-মানবন্টন ও ভর্তি পরীক্ষার তারিখ...

Read more
ঢাকার সেরা ১০টি কোচিং সেন্টারের তথ্য

রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে রয়েছে অসংখ্য বিশ্ব্যবিদ্যালয়ের ভর্তি কোচিং সেন্টার। তবে সবগুলো কোচিং সেন্টার ভালো নয়। আজকের আর্টিকেলে ঢাকার সেরা...

Read more
১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ

বিশ্বব্যাংক ও জাপানের বৃত্তি নিয়ে নিয়ে বিশ্বের ১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ এসেছে। ‘জয়েন্ট জাপান ওয়ার্ল্ড ব্যাংক গ্র্যাজুয়েট স্কলারশিপ’-এর আওতায় শিক্ষার্থীরা...

Read more
স্বরধ্বনি কাকে বলে

স্বরধ্বনি কাকে বলে: স্বরধ্বনি হচ্ছে এমন কিছু ধ্বনি অন্য কোনো ধ্বনির সাহায্য ছাড়াই নিজে নিজে উচ্চারিত হতে পারে। এধরনের বর্ণের...

Read more

Related Posts

Welcome Back!

Login to your account below

Create New Account!

Fill the forms bellow to register

Retrieve your password

Please enter your username or email address to reset your password.

x

Add New Playlist

Are you sure want to unlock this post?
Unlock left : 0
Are you sure want to cancel subscription?